বিয়ের পর মেয়েদের ওজন বাড়ে কেন?

খাদিজা তুল কুবরা: একটা মজার প্রবাদ প্রচলিত এই ওজন নিয়ে যে, মেয়েদের ওজন বাড়ে বিয়ের পর আর ছেলেদের বিচ্ছেদের পরে। তবে এই কৌতুক বাদেও একটি রহস্য সবসময়ই আমাদের মধ্যে থেকে যায় যে বিয়ের পর ই কেন মেয়েদের ওজন বাড়ে? মেয়েরা প্রায় ই নানান মানুষের এমন অহেতুক প্রশ্নে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়ে। অথচ নববিবাহিতাদের এমন ওজন বাড়া লজ্জাজনক অথবা বিব্রতকর কিছুই নয়। যখন দুজন মানুষ আচমকা এই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হই সেটি নারী পুরুষ দুজনের জন্যেই অন্যরকম একটি জগতের তৈরি করে। পূর্বের সকল অভ্যাস অনভ্যাসের সাথে বিস্ময়করভাবে পরিবর্তন ঘটে। প্রত্যেকের দিনলিপি, জীবনযাত্রা, খাওয়া-দাওয়ায় একজনের প্রভাবে অন্যজনের প্রভাবিত হয়। তখন দুজন ‘আমি’ মিলে সকলের অলক্ষ্যেই ‘আমরা’ শব্দটি তৈরি হয়। সব পরিবর্তনের আড়ালে প্রথম যে বিষয় টি আমাদের সকলের চোখে পড়ে সেটি স্বামী-স্ত্রী উভয়ের ই ওজন বৃদ্ধি। ‘দ্য অবেসিটি’ এই সাময়িক পত্রিকাটির গবেষণা অনুযায়ী বিয়ের পরবর্তী ৫ বছরে ৮২% দম্পতির ৫-১০ কেজির মতো ওজন বৃদ্ধি পায়। এবং এর অনুপাত হারের আধিক্যে মেয়েদের পাল্লা ই ভারী।

 

তবে কেন মেয়েদের ক্ষেত্রেই ওজন বাড়ার প্রবণতা বেশি? এক্ষেত্রে অনেকগুলো কারণ ই কাজ করতে পারে। এর কয়েকটি কারণের অন্যতম কারণ হতে পারে হঠাৎ করে স্ট্রেস লেভেল বা মানসিক চাপের বৈচিত্র্যতা  অথবা নতুন গর্ভাবস্থা। আবার অনেক মেয়েরাই বিয়ের আগে খুব খাবার সংযত করে চলে যেন বিয়েতে শারীরিক গঠনে  ফিট থাকতে পারে তাই। যেটি বিয়ের পর প্রয়োজনীয়তা হারায় এবং ওজন বৃদ্ধি পেতে থাকে। মজার ব্যাপার হলো যে নারী পুরুষেরা বিয়ে করেনি অথচ একসাথে থাকে তাদের নিয়ে কোনো গবেষণায় ওজন বৃদ্ধিগত তথ্য পাওয়া যায় নি। তাহলে কি সত্যি বিয়ের সাথে ওজন বৃদ্ধির কোনো যোগসূত্র আছে? চলুন জেনে নেই এর সাথে জড়িত কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ কারণসমূহ।

১. নতুন জীবনের পদার্পনের সাথে মানসিক চাপ বৃদ্ধির ঘটনাটি যেন ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে। নতুন ঘর, নতুন সংসার, নতুন মানুষ, আত্মীয়-অনাত্মীয় সকলের সাথে নতুন করে একটা সম্পর্ক তৈরি কম কষ্টসাধ্য ব্যাপার নয়। নতুন পরিবেশের সাথে খাপখাইয়ে নেয়া ,যৌথ ফ্যামিলি হলে শ্বশুরবাড়ির সকলের সাথে একধরনের আপোষ করে চলা সাধারণভাবেই মেয়েদের মানসিক চাপের বৃদ্ধি ঘটায় অতি দ্রুতভাবে। এবং চাপ অতিরিক্ত ভাবে বাড়লে সাধারণভাবেই কেউ কেউ অতিরিক্ত খায় কেউ কেউ খাওয়া দাওয়া একদম ই কমিয়ে দেয়। চাপের দ্রুত তারতম্য ঘটতে থাকলে  মেটাবলিক রেট ওজন বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। তাই প্রথম দলের সংখ্যাই বেশি। যার ফলে মেয়েদের ওজন উল্লেখযোগ্য হারে বাড়তে থাকে।

২. বিয়ের পর ওজন বৃদ্ধির একটি কারণ পুরোপুরিভাবে বিজ্ঞানসম্মত। বিজ্ঞানীরা বলেন মেয়েদের বয়স ৩০ এর কাছাকাছি এলে মেয়েদের মেটাবলিক রেট কমতে শুরু করে যেটি ওজন দ্রুতগতিতে বাড়তে সাহায্য করে। যেহেতু আজকাল মেয়েরা সাধারণত বয়স ৩০ এর কাছাকাছি সময়ে বিয়ে করে সুতরাং তাদের ওজন বিয়ের পরপর বৃদ্ধির এই কারণ টা হতে পারে যুক্তিসঙ্গত। এছাড়াও হরমোনাল পরিবর্তন ওজন বৃদ্ধির আরো একটি অন্যতম কারণ বলে বিজ্ঞানীরা ধারণা করেন। যার ফলে বিয়ের পর ওজন বৃদ্ধির হার যেমন বাড়তে থাকে, তেমনি কমতে থাকে ওজন কমার অনুপাত।

৩. নতুন বিবাহিত দম্পতি মানেই হঠাৎ করেই যেনো বিয়ে বাড়িতে আত্মীয় স্বজনদের আগ্রহ উৎসাহ তীব্রভাবে বাড়তে থাকে। আচার, অনুষ্ঠান, উৎসব, সিনেমা দেখা সবকিছু পাল্লা দিয়ে বাড়তে থাকে। আর বাঙালীর অনুষ্ঠান উৎসব মানেই যে অকল্পনীয় ভুড়িভোজ সেটি কে বা না জানে। সবার ই অপ্রতুল আগ্রহ সদ্য বিবাহিত নতুন বউ অথবা নতুন জামাই কে নিয়ে। সুতরাং যা হবার তাই হয় সেখানেই নতুন বিবাহিতা মেয়েটির ওজন কয়েক কেজি না বেড়ে যাবে কোথায়।

নানা ঝড়ঝাপটা শেষে ভালোবাসার মানুষকে বিয়ে করার পর বিবাহিত জীবন অনেকের জীবনে আশীর্বাদ ই বটে। কিন্তু সম্পূর্ণভাবে কতটুক আশীর্বাদ, যারা এসব কারণে ওজন বাড়িয়ে হতাশ হয়ে আছেন তারা ভালো বলতে পারবেন!

বিঃদ্রঃ বাংলাকোষ কোনো সংবাদপত্র নয়, এটি মূলত একটি আর্কাইভ। বাংলাকোষ এ প্রকাশিত সকল তথ্য কপিরাইট এর অন্তর্ভুক্ত। সুতরাং কোনো পূর্বানুমতি ছাড়া বাংলাকোষের কোনো তথ্য ব্যবহার করা যাবে না। তবে অব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো সূত্রসহ ব্যবহার করতে পারবে।